ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা ও কোতোয়ালি থানা এলাকায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুইজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফুলবাড়িয়া উপজেলার আন্দালিয়া গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে আব্দুল্লাহেল কাফি (৩১) ও ময়মনসিংহ শহরের কালিবাড়ি পুরাতন গোদারাঘাট এলাকার ইব্রাহিমের ছেলে আলমাগীর (২৭)।

পুলিশ বলছে, নিহতরা মাদক ব্যবসা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

ময়মনসিংহ জেলা ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ কামাল হোসেন আকন্দ জানান, শুক্রবার রাতে মুক্তাগাছা উপজেলার রসুলপুর টু কাঁঠালিয়া ঝলই ব্রিজ সংলগ্ন কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে- এমন সংবাদ পেয়ে ডিবি পুলিশ রাত ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে অস্ত্রধারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে এসআই নাজিম উদ্দিন, এএসআই মজিদ আহত হন। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে শর্টগানের গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়।

পরে ঘটনাস্থল হতে অস্ত্রধারী আব্দুল্লাহেল কাফিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায় এবং তার হেফাজতে থাকা একটি কাঠের বাটযুক্ত এলজি ও ০২ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। আহত কাফিকে মুক্তাগাছা থানা পুলিশের সহায়তায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আব্দুল্লাহহেল কাফির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে একাধিক মামলা মামলা রয়েছে বলেও জানান ওসি।

ওসি শাহ কামাল হোসেন আকন্দ আরও জানান, ডিবি পুলিশের আরেকটি টিম শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে কোতোয়ালি মডেল থানার ওসির (তদন্ত) নেতৃত্বে মাদকবিরোধী অভিযানে যায়। এ সময় ময়মনসিংহ-কিশোরপঞ্জ সড়কের সদর উপজেলার সাহেব কাচারী বাজারের কাছে পৌঁছালে অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ী পুলিশকে লক্ষ্য করে অতর্কিত গুলি ছুড়তে থাকে।

এতে পুলিশ কনস্টেবল সাইদুল ইসলাম ও আরমান উদ্দিন আহত হন। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে শর্টগানের গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি করতে করতে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে আলমাগীরকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায় এবং তার কাছে থাকা কেজি গাঁজা এবং গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়। আহত আলমাগীর ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আলমগীরের বিরুদ্ধেও একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে বলে তিনি জানান।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here