নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানি প্রতিরোধের খসড়া আইন শ্রম ও আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পেশ করেছে জেন্ডার প্ল্যাটফর্ম।

বুধবার জেন্ডার প্ল্যাটফর্মের সদস্যরা সচিবালয়ে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক ও শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হকের হাতে এ আইনের খসড়া তুলে দেন। এ সময় মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী এই আইন প্রণয়নের প্রয়োজনীয়তার কথা স্বীকার করেন এবং এই আইন প্রণয়ন প্রক্রিয়াতে তাদের সম্ভাব্য সহায়তার আশ্বাস দেন।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, বিদ্যমান এই আইনগুলো যথেষ্ট কি না বা কর্মক্ষেত্রে যৌন হয়রানি প্রতিরোধে একটি নতুন আইন প্রণয়ন করা প্রয়োজন কি না তা কমিশন দেখবে। এই খসড়া তাদের সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

কর্মক্ষেত্রে যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধের ওপর খসড়া আইন জমা দেওয়ার সময় জেন্ডার প্ল্যাটফর্মের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। তারা এই আইন প্রণয়ন সম্পর্কে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর কাছে তাদের যৌক্তিক মতামত পেশ করেন।

তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমরা যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছি। যে আন্দোলন করে যাচ্ছি কিছুটা হলেও তাতে সফল হয়েছি। আমরা হাইকোর্টের রায়ের আলোকে একটি আইনের খসড়া তৈরি করেছি। যদিও আইন দিয়ে সবকিছু সমাধান হবে না। তবে এটি খুব প্রয়োজন। কারণ, বিশ্বের সব দেশেই যৌন হয়রানি প্রতিরোধে আইন রয়েছে। আইনটি পাস হলে কর্মক্ষেত্রে যৌন নিপীড়ন অনেকাংশে কমে যাবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here